ঢাকা      সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
IMG-LOGO
শিরোনাম

আফগান শান্তি চুক্তির জন্য ঐক্যবদ্ধ পাকিস্তান, চীন, রাশিয়া ও ইরান

IMG
22 May 2020, 2:26 PM

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, বাংলাদেশ গ্লোবাল: পাকিস্তান, চীন, ইরান ও রাশিয়া মঙ্গলবার (১৯মে) যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানে ব্যাপকভিত্তিক যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করার জন্য দেশটির সব পক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি ও ড. আবদুল্লাহ আবদুল্লাহর মধ্যে সাম্প্রতিক ক্ষমতা ভাগাভাগির একটি চুক্তিকে স্বাগত জানিয়ে দেশগুলো এই আহ্বান জানায়। এই চার দেশের বিশেষ প্রতিনিধিরা এক ভার্চুয়াল কনফারেন্সে আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতি ও দীর্ঘ দিনের অস্থিরতা অবসানে চলমান প্রক্রিয়াগুলো নিয়ে আলোচনা করেন।

ইসলামাবাদ, বেইজিং, তেহরান ও মস্কো থেকে একযোগে প্রকাশিত যৌথ বিবৃতিতে আফগানিস্তানে বিদ্যমান সন্ত্রাসী হুমকির অস্তিত্ব নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশও করা হয়। বিবৃতিতে বলা হয়, চার দেশ সার্বজনীন যুদ্ধবিরতির জন্য জাতিসঙ্ঘ মহাসচিব আন্তনিও গুটারেস যে আহ্বান জানিয়েছেন, তা তারা সমর্থন করে।

তারা আল কায়েদা, আইএসআইএস, ইটিআইএম, টিটিপি ও অন্যান্য আন্তর্জাতকি সন্ত্রাসী সংগঠনের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য আফগানিস্তানের সব পক্ষের প্রতি আহ্বান জানায়। আফগানিস্তানে বিশেষ করে দেশটির দায়েশ যে হুমকির সৃষ্টি করেছে, সে ব্যাপারে পাকিস্তান, চীন, রাশিয়া ও ইরান অভিন্ন অবস্থানে রয়েছে।

গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, এই চার দেশ আফগান তালেবানের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছে। তারা মনে করে, আফগানিস্তানে দায়েশের উত্থান বন্ধ করতে পারে আফগান তালেবান। সম্প্রতি তালেবান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে একটি চুক্তি হয়েছে। এর রেশ ধরে দেশটি থেকে ধীরে ধীরে সব মার্কিন সৈন্য সরে যাবে। যৌথ বিবৃতিতে আফগানিস্তানের সার্বভৌমত্ব, স্বাধীনতা ও ভূখণ্ডগত অখণ্ডতার প্রতি তাদের সমর্থন আবারো ব্যক্ত করা হয়।

তারা দুই গুরুত্বপূর্ণ নেতার মধ্যে চুক্তিকে স্বাগত জানিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে, এর ফলে আন্তঃআফগান আলোচনা শুরুর পথ সুগম হবে। তারা আফগান নেতৃত্বাধীন, আফগান মালিকানায় শান্তি ও সমন্বয় প্রক্রিয়াকে সমর্থন করে। যৌথ বিবৃতিতে আফগান ইস্যুতে তাদের মধ্যে যোগাযোগ অব্যাহত রাখতে সম্মতি প্রকাশ করা হয় এবং আফগানিস্তানের শান্তি প্রক্রিয়া ও পুনর্গঠন এগিয়ে নিতে একযোগে কাজ করতে চার দেশ রাজি হয়।

সাম্প্রতিক খবর জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

সর্বশেষ খবর

আরো পড়ুন