ঢাকা      শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
IMG-LOGO
শিরোনাম

আম্পানে ক্ষতিগ্রস্তদের এক হাজার কোটি রুপি সহায়তা ঘোষণা নরেন্দ্র মোদির

IMG
22 May 2020, 3:27 PM

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, বাংলাদেশ গ্লোবাল: সাইক্লোন আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্তদের ১০০০ কোটি টাকার আর্থিক সাহায্য ঘোষণা করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সাইক্লোনে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা আকাশপথে ঘুরে দেখলেন নরেন্দ্র মোদি । ২৮৩ বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে ক্ষতি করেছে আম্ফান। এখনো পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গে মোট ৮০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানানো হয়েছে রাজ্যের পক্ষ থেকে। রাজ্যে আকাশপথে নজরদারিতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্যপাল জগদ্বীপ ধনকরও।

বুধবার (২০মে) রাজ্যের বিভিন্নপ্রান্তে তাণ্ডব চালায় সাইক্লোন আম্ফান। ধ্বংসলীলা চালিয়ে হাজার হাজার ঘরবাড়ি উপড়ে ফেলা থেকে শুরু করে বিদ্যুৎ এর খুঁটি, গাছ ভেঙে ফেলে। করোনা ভাইরাস মহামারি ছড়িয়ে পড়ায় দেশে লকডাউন জারি হওয়ার পর থেকে গত তিনমাসে এই প্রথমবার দিল্লির বাইরে সফরে প্রধানমন্ত্রী মোদি।

শুক্রবার (২২মে) সকাল ১১ টার আগে বিমান বন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে গিয়েছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। প্রত্যেকের মুখেই দেখা যায় মাস্ক। বুধবার রাজ্যের রাজধানী কলকাতা সহ বিভিন্ন অংশ দিয়ে ঝড় বয়ে গেছে। তার জেরে কার্যত ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে রাজ্য। আজ আকাশ পথে সেই ধ্বংসস্তুপ নিজের চোখে দেখলেন প্রধানমন্ত্রী।

এ রাজ্যে প্রায় ১ লক্ষ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বৃহস্পতিবার একাধিক টুইটে প্রধানমন্ত্রী জানান, পুরো দেশ বাংলার সঙ্গে রয়েছে এবং ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যের ক্ষেত্রে কোনো কার্পণ্য করা হবে না। টুইটে প্রধানমন্ত্রী লেখেন, “সাইক্লোন আম্ফানে বাংলায় ধ্বংসলীলা দেখলাম। এটা কঠিন সময়। পশ্চিমবঙ্গের প্রতি সহমর্মিতার সঙ্গে রয়েছে পুরো দেশ। রাজ্যের মানুষের দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠার কামনা করি। স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফেরানোর চেষ্টা থাকবে”।

পশ্চিমবঙ্গের পর ওড়িশায় যাবেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। ওড়িশাতেও ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে সাইক্লোনের তাণ্ডবে। ফলে সেখানে উপকূলবর্তী এলাকায় ব্যাহত বিদ্যুৎ, টেলিকম যোগাযোগ ব্যবস্থা। ওড়িশা সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে সে রাজ্যে ৪৪.৮ লক্ষ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত।

সাম্প্রতিক খবর জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

সর্বশেষ খবর

আরো পড়ুন