ঢাকা      সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭
IMG-LOGO
শিরোনাম

ফরিদপুরে গৃহবধুকে হত্যার অভিযোগ

IMG
31 May 2020, 2:03 PM

ফরিদপুর, বাংলাদেশ গ্লোবাল: ফরিদপুরের সালথা উপজেলার গট্টি ইউনিয়নের শিংহপ্রতাপ গ্রামের স্বামীর বাড়ী থেকে রোজিনা বেগম (২২) নামের এক গৃহবধুর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার দিবাগত রাতে রোজিনার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার পর থেকে স্বামী ও তার পরিবারের সদস্যরা পলাতক রয়েছে। রোজিনা সিংহপ্রতাপ গ্রামের হারুন মোল্লার স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানান, তিন বছর আগে ফরিদপুর সদর উপজেলার কৈজুরী ইউনিয়নের ঘোড়াদহ গ্রামের মৃত আঃ ওয়াহেদ মোল্যার মেয়ে রোজিনার সাথে সালথা উপজেলার গট্টি ইউনিয়নের সিংহপ্রতাপ গ্রামের নুরুল ইসলাম মোল্লার ছেলে হারুন মোল্লার বিয়ে হয়। তাদের সংসারে দেড় বছর বয়সের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

রোজিনার বড় ভাই হায়দার মোল্যা ও কাইয়ুম মোল্লা অভিযোগ করে বলেন, রোজিনার স্বামী হারুন মোল্লা বেকার, বখাটে ও নেশাখোর হওয়ায় তাদের সংসারে দীর্ঘদিন যাবত অশান্তি চলছিল। গত এক সপ্তাহ আগে হারুন আরেকটি মহিলাকে বিয়ে করে ঘরে আনে। এ নিয়ে তাদের সংসারে বড় ধরনের ঝামেলার সৃষ্টি হয়। মাঝে মধ্যেই রোজিনাকে তার স্বামী মারপিট করতো। শনিবার রাত ১১টার দিকে আমরা খবর পেয়ে রোজিনার শশুর বাড়ীতে যাই। সেখানে ঘরের ভিতর রোজিনার মৃতদেহ দেখতে পাই। রোজিনার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে। আমাদের ধারনা রোজিনাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে। এ সময় রোজিনার স্বামী ও তার পরিবারের কোন সদস্যকে বাড়ীতে পাওয়া যায়নি। তারা সবাই পালিয়ে গেছে। আমার বোনকে যারা হত্যা করেছে, আমরা তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। সালথা থানার ওসি মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ জানান, মরদেহটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো কোন মামলা হয়নি।

সাম্প্রতিক খবর জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

সর্বশেষ খবর

আরো পড়ুন