ঢাকা      শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ৫ আষাঢ় ১৪২৮
IMG-LOGO
শিরোনাম

দেবরের লাঠির আঘাতে গৃহবধূ হত্যার অভিযোগ

IMG
10 June 2021, 9:30 AM

মাগুরা, বাংলাদেশ গ্লোবাল: মাগুরায় আভা রানী বিশ্বাস (৫০) নামে এক গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার পর মুখে বিষ ঢেলে আত্বহত্যা প্রমানের অপচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। দেবরের লাঠির আঘাতের কারনে মৃত্যু হয়েছে বলে দাবী স্বজনদের। এ ঘটনায় নিহত গৃহবধুর স্বামীকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। বুধবার সকালে মাগুরা ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূ।

নিহতের ছোট বোন লিপিকা নারী বিশ্বাস জানান, গত সোমবার তার মাগুরা শ্রীপুর হাজরাতলা এলাকার শ্বশুর বাড়িতে পারিবারিক কলহের জের ধরে তিন সন্তানের জননী আভা রানীকে বোনের দেবর নিশিকান্ত বিশ্বাস মারধোর করে। এ সময় লাঠি দিয়ে তার মাথায় প্রচন্ড আঘাত করায় অসুস্থ হয়ে পড়ে সে। এ ঘটনা জানতে পেরে মঙ্গলবার রাত্রে ও-ই বাড়িতে গিয়ে অসুস্থ বোনের খোজ নেন তারা, তখন ঘটনার জন্য ক্ষমা চেয়ে তার উন্নত চিকিৎসার ব্যাবস্থা করা হচ্ছে বলে জানায় শশুর বাড়ির লোকেরা। কিন্তু পরদিন সকালেই বোনের মৃত্যুর খবর পান তারা। এ সময় বিষপান করায় মৃত্য হয়েছে জানালে হাসপাতালে এসে তাকে মৃত অবস্থায় দেখতে পায় তাকে।

লিপিকা রাণীসহ পরিবারের অন্যদের দাবী আভা রানীকে মেরে তার মুখে বিষ ঢেলে হাসপাতালে এনে ভর্তি করেছে তার শশুর বাড়ির লোকেরা। হত্যার ঘটনা ধামাচাপা দিতেই আত্বহত্যার নাটক সাজানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তারা।

মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডাক্তার এনামুল কবির জানান, বুধবার সকালে বিষ খেয়েছে মর্মে ওই গৃহবধূ মহিলাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এখানে চিকিৎসাধী অবস্থায় তার মৃতু হয়েছে।

এ বিষয়ে শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকদেব রায় জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ। মরদেহটি ময়না তদন্তের জন্য মাগুরা সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্টের পর মৃত্যুর সঠিক কারন হত্যা নাকি আত্নহত্যার ঘটনা সেটি জানা যাবে। তবে প্রাথমিকভাবে স্বজনদের অভিযোগের ভিত্তিতে নিহত গৃহবধুর স্বামী সুশান্তকে হাসপাতাল এলাকা হতে আটকের পর পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।

বাংলাদেশ গ্লোবাল/এমএস

বাংলাদেশ গ্লোবাল ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

সাম্প্রতিক খবর জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ

সর্বশেষ খবর

আরো পড়ুন