ঢাকা      শুক্রবার, ০৬ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮
IMG-LOGO
শিরোনাম

বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথেই দেশ পরিচালিত হচ্ছে: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী

IMG
19 June 2021, 7:17 PM

মুন্সিগঞ্জ, বাংলাদেশ গ্লোবাল: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার পর বিভিন্ন সময়ে ৩০ বছর স্বাধীনতাবিরোধীরা দেশ পরিচালনা করেছে। এ সময়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও আদর্শ যেমন ভূলুণ্ঠিত হয়েছে তেমনি জাতি উন্নয়ন বঞ্চিত হয়েছে। দেশের উল্টো পদযাত্রা থেকে দেশকে সঠিক পথে ফিরিয়ে এনে বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ পরিচালনা করছেন।

শনিবার (১৯ জুন) মুন্সিগঞ্জের সদর উপজেলার কোটগাঁও এলাকায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর এ ম্যুরাল স্থাপন করা হয়।

মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন সব দিকেই দক্ষ একজন রাষ্ট্রনায়ক। তাঁর সাড়ে তিন বছরের শাসনামল এর উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। বাংলাদেশের বর্তমান উন্নয়নের প্রায় সকল ভিতই বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু পৃথিবীতে একমাত্র নেতা যিনি তার জীবদ্দশায় একাধারে স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখেছেন, স্বাধীনতা যুদ্ধে দেশের জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করেছেন এবং স্বাধীনতা অর্জন করেছেন। বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আজও হয়তো আমরা পরাধীন থাকতাম।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু অল্প দিনেই বিশ্ব নেতায় পরিনত হয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধু বিশ্ব সভায় দাঁড়িয়ে বলেছিলেন, বিশ্ব আজ দুই ভাগে বিভক্ত। একদিকে শোষক আর একদিকে শোষিত, আমি শোষিতের পক্ষে। বিশ্ব সভায় তিনি বাংলাদেশের নেতা হিসেবে কথা বলেননি, বিশ্বনেতা হিসেবে কথা বলেছেন। তিনি বলেছিলেন, অস্ত্র প্রতিযোগিতা বন্ধ করে এই পয়সা দিয়ে দারিদ্র্য বিমোচনের জন্য, শিক্ষার, স্বাস্থ্যের জন্য খরচ করতে বলেছিলেন। জাতিসংঘে দাঁড়িয়ে তিনি উপদেশ দিতেন, বিশ্বের নীতি কী হওয়া উচিত।

মুন্সিগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে মুন্সিগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মহিউদ্দিন, মুন্সিগঞ্জ- ৩ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. মৃণাল কান্তি দাস, মুন্সিগঞ্জ -১ আসনের সংসদ সদস্য মাহী বি চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ লুৎফর রহমান, পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন পিপিএম ও মুন্সিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব উপস্থিত ছিলেন।

পরে মন্ত্রী মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের ভিত্তিপ্রস্তর এবং শ্রীনগর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স উদ্বোধন করেন।

বাংলাদেশ গ্লোবাল/এমএস

বাংলাদেশ গ্লোবাল ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

সাম্প্রতিক খবর জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ

সর্বশেষ খবর

আরো পড়ুন