ঢাকা      শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০
শিরোনাম

মিয়ানমারে আরাকান আর্মির বিরুদ্ধে তীব্র লড়াই অব্যাহত

IMG
28 February 2024, 6:32 AM

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, বাংলাদেশ গ্লোবাল: মিয়ানমারের রাখাইন অঙ্গরাজ্যে রাখাইনদের সশস্ত্র গোষ্ঠী আরাকান আর্মি (এএ) ও সরকারী সেনাদের মধ্যে তীব্র লড়াই চলছে। সামরিক জেট বিমান থেকে বোমাবর্ষণ করলে মিন পিয়া উপশহরের অন্তর্গত মিন ফু হাসপাতাল ও থায়কান গ্রামে অসংখ্য মানুষ আহত হন। সেখানে বিমান হামলার ফলে বেসামরিক ব্যক্তিরা হতাহত হচ্ছেন। আবাসিক ভবন, হাসপাতাল, স্কুল ও ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো ক্ষতির শিকার হয়েছে।

থাকিয়ান গ্রামের এক স্থানীয় বাসিন্দার মতে, রাখাইন রাজ্যের উত্তরাঞ্চলে মিনপিয়া উপশহরের রামাউং সেতুর কাছে অবস্থিত গ্রামে গত সোমবার মধ্যরাতের ঠিক পরে জেট বিমান থেকে বোমাবর্ষণ করা হলে ১০ জন বেসামরিক ব্যক্তি আহত হন।

তিনি বলেন, 'প্রায় ৩০ জন স্থানীয় মানুষ বোমা হামলায় আহত হন। একটি স্কুলে দুইটি বোমা নিক্ষেপ করা হয় এবং অপর একটি বোমা গ্রামে পড়েছে। এসব হামলায় কেউ নিহত হননি। আহতদের অনেকেই শরণার্থী।”

স্থানীয় ওই বাসিন্দা বলেন, সামরিক কাউন্সিল এমন সব স্কুল ও গ্রামে বোমা নিক্ষেপ করছে যেখানে শরণার্থীরা বাস করেন। “এটা ইচ্ছাকৃত বোমাবর্ষণ, কারণ সেখানে কোনো যুদ্ধ হচ্ছিল না। আমরা অন্য একটি গ্রামে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করবো।”

মিনপিয়ার একজন বাসিন্দা জানান, সামরিক কাউন্সিল, যারা রাখাইনের যুদ্ধক্ষেত্রে একের পর এক শিবির হারাচ্ছে, তারা এখন বেসামরিক লোকরা যেখানে অবস্থান করছেন, এমন স্থাপনায় হামলা চালাচ্ছে। গ্রাম, হাসপাতাল ও আবাসিক ভবনের ওপর হামলায় রাখাইন রাজ্যের বাসিন্দারা অত্যন্ত উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন।

তিনি আরও বলেন “স্থানীয়রা খুবই উদ্বিগ্ন এবং তারা ঘুমাতে বা খেতে পারছেন না। তাদের মনে আশংকা, শত্রুরা বিমানে এসে তাদের গুলি করে হত্যা করবে। আমি এসব যুদ্ধ সম্পর্কে যা বলতে চাই, তা হলো, সামরিক বাহিনীর উচিত তাদের নিজেদের মানুষের প্রতি গুলি না চালানো এবং তাদের পেছনে ধাওয়া না করা।”

মিন পিয়া টাউনশিপের প্রায় সব সামরিক অবস্থান এখন আরাকান আর্মির দখলে। মিলিটারি কাউন্সিলের নয় নম্বর কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ স্কুল এখনো তাদের দখলে থাকায়, আরাকান আর্মি সেখানে হামলা চালাচ্ছে।

সবশেষ খবর এবং আপডেট জানার জন্য চোখ রাখুন বাংলাদেশ গ্লোবাল ডট কম-এ। ব্রেকিং নিউজ এবং দিনের আলোচিত সংবাদ জানতে লগ ইন করুন: www.bangladeshglobal.com

সর্বশেষ খবর

আরো পড়ুন