ঢাকা      সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
শিরোনাম

ধর্ষণের ভিডিও করে তরুণীদের ব্ল্যাকমেইল করতেন পপি

IMG
10 April 2024, 8:32 AM

হবিগঞ্জ, বাংলাদেশ গ্লোবাল: হবিগঞ্জে টিভি চ্যানেলে গানের সুযোগ করে দেয়ার কথা বলে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় সীমা আক্তার পপি নামে এক নারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) বিকেলে বাহুবলের পুটিজুরী থেকে পপিকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় পপির কাছ থেকে বিভিন্ন নারী-পুরুষের অশ্লীল ভিডিও ধারণকৃত মোবাইল ফোন জব্দ করে পুলিশ। সন্ধ্যায় তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়।

পুলিশ জানায়, টিভি চ্যানেলে গানের সুযোগ করে দেয়ার কথা বলে শহরতলীর এক কিশোরীকে শামীম নামে এক ব্যক্তি ধর্ষণ করে। ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখানো হয়। এ ঘটনায় ওই কিশোরী অসুস্থ হয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে সে তার মাকে বিষয়টি জানালে তিনি সদর থানাযর ওসি (তদন্ত) মুসলেহ উদ্দিনকে বিস্তারিত জানান।

এক পর্যায়ে গত ৩০ মার্চ সদর থানার এসআই মমিনুল ইসলাম পুটিজুরী থেকে অভিযুক্ত ধর্ষক শামীমকে গ্রেফতার করে। এ সময় তার কাছ থেকে মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। তার স্বীকারোক্তি মতে আরও রহস্য উদঘাটন হয়। এ ঘটনায় কিশোরীর মা বাদী হয়ে সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন পর্নোগ্রাফি আইনে উল্লেখিতদের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

এ পরিপ্রেক্ষিতে ৩১ মার্চ ওই কিশোরীর মেডিকেল শেষে কোর্টের জবানবন্দিতে তাদের নাম প্রকাশ করে। এর পরিপ্রেক্ষিতে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। হবিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অজয় দেব জানান, ধর্ষণের ঘটনায় পপি জড়িত বলে গ্রেফতারকৃত শামীম জানিয়েছেন। তিনি পলাতক ছিলেন। এই মামলার অপর দুই আসামি ইতি ও রমিজ আলীকে ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।

সবশেষ খবর এবং আপডেট জানার জন্য চোখ রাখুন বাংলাদেশ গ্লোবাল ডট কম-এ। ব্রেকিং নিউজ এবং দিনের আলোচিত সংবাদ জানতে লগ ইন করুন: www.bangladeshglobal.com

সর্বশেষ খবর

আরো পড়ুন