ঢাকা      রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১
শিরোনাম

অনুপ্রবেশকারীদের নিমন্ত্রণ করে নিয়ে আসে আর বাঙালিদের ঘেন্না করে তৃণমূল: মোদি

IMG
20 May 2024, 7:13 AM

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, বাংলাদেশ গ্লোবাল: ভারতে লোকসভা নির্বাচন যত এগোচ্ছে, ততই ভোট প্রচারে তীব্র হচ্ছে মেরুকরণের চেষ্টা। বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেস- দুই প্রধান প্রতিপক্ষের সর্বোচ্চ স্তর থেকে ছোড়া হচ্ছে একের পর এক বাণ। ভোট প্রচারে রাজ্যে এসে আগেই ‘হিন্দুদের তৃণমূল সরকার দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিকে পরিণত করেছে’ বলে মন্তব্য করেছিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রবিবার খড়গপুরে এক ধাপ এগিয়ে তিনি বললেন, অনুপ্রবেশকারীদের আমন্ত্রণ জানানো ও বাঙালিদের প্রতি ঘৃণা, এটাই তৃণমূলের মতলব।

এদিন তিনি বলেন, ‘অনুপ্রবেশকারীদের জাল রেশন কার্ড ও আধার কার্ড বানায় তৃণমূল সরকার। এই অনুপ্রবেশকারীরা আপনার জন্য বিপদ হলেও, বাংলার জন্য সংকট হলেও তৃণমূলের জন্য এরা ভোট ব্যাংক। যেখানে হিন্দুরা সংখ্যালঘু হয়ে পড়েছেন, অনুপ্রবেশকারীদের ভোট বেড়ে গিয়েছে; তৃণমূল তাদের নিরাপদ আসন মনে করে। এজন্য তৃণমূল বাংলার পরিচয় মুছে ফেলতে একটা ভয়ানক খেলা খেলছে। তৃণমূলের পরিকল্পনা হলো অনুপ্রবেশকারীদের আমন্ত্রণ ও বাঙালিদের প্রতি ঘৃণা।’

মঠ ও মিশনের সন্ন্যাসীদের হুমকি দেওয়ায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তীব্র আক্রমণ করেন নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, ভোটে যে তৃণমূল সরকার বাংলার মানুষকে ভয় দেখায়, হুমকি দেয়, হিংসা করায় তারা এবার সব সীমা পার করে দিয়েছে। আজ দেশ ও দুনিয়ায় ইসকন, রামকৃষ্ণ মিশন এবং ভারত সেবাশ্রম সংঘ সেবা ও সদাচারের জন্য সারা বিশ্বে বিখ্যাত। তারা ভারতের নাম উজ্জ্বল করে। কিন্তু আজ বাংলার মুখ্যমন্ত্রী ইসকন, রামকৃষ্ণ মিশন, ভারত সেবাশ্রমের সন্ন্যাসীদের খোলাখুলি হুমকি দিচ্ছেন। খোলাখুলি হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন। দুনিয়াজুড়ে এই মিশনের সঙ্গে যুক্ত লক্ষ লক্ষ অনুগামী থাকেন। আর এদের উদ্দেশ শুধুমাত্র মানুষের সেবা করা। বাংলার সরকার তাদের দিকে আঙুল উঠিয়ে তাদের নাম নিয়ে হুমকি দিচ্ছে। এই দুঃসাহস কেবলমাত্র নিজের ভোট ব্যাংককে খুশি করতে। সেই লক্ষ্যে তৃণমূল এতো নীচে নেমে গেছে। তাদের বাংলার মানুষের কোন চিন্তা নেই। লক্ষ লক্ষ মানুষের ভাবাবেগের কোন চিন্তা নেই।

সবশেষ খবর এবং আপডেট জানার জন্য চোখ রাখুন বাংলাদেশ গ্লোবাল ডট কম-এ। ব্রেকিং নিউজ এবং দিনের আলোচিত সংবাদ জানতে লগ ইন করুন: www.bangladeshglobal.com

সর্বশেষ খবর

আরো পড়ুন